;

নরসিংদী

তিন হাজার বছরের প্রাচীন সভ্যতার জেলা

নরসিংদীর ইতিহাস

মেঘনা, শীতলক্ষ্যা, আড়িয়ালখাঁ ও পুরাতন ব্রক্ষ্মপুত্র নদীর তীর বিধৌত প্রাচীনসভ্যতা ও ঐতিহ্যে লালিত জেলাটির নাম নরসিংদী। উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা ও অবস্থানগত কারণে এ জেলা কৃষি, শিল্প, অর্থনীতি, ক্রীড়া ও সংস্কৃতিতে এক সমৃদ্ধ জেলা হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেছে। এ জেলা ২৩°৪৬’ হতে ২৪°১৪’ উত্তর অক্ষরেখা এবং ৯০°৩৫’ ও ৯০°৬০’ পূর্ব দ্রাঘিমার মধ্যে অবস্থিত। উত্তরে কিশোরগঞ্জ, পূর্বে ব্রাহ্মনবাড়িয়া, দক্ষিণে নারায়নগঞ্জ ও ব্রাহ্মনবাড়িয়া এবং…

বিস্তারিত

লালমাটির দেশ সোনাইমুড়ী টেক, নরসিংদী

লালমাটির দেশ সোনাইমুড়ী টেক, নরসিংদী

নাগরিক কোলাহলের বাহিরে পরিবার নিয়ে কিছুটা সময় স্বস্তিতে কাটাতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি সোনাইমুড়ী টেক থেকে।ঢাকা থেকে মাত্র ৬৫ কিলোমিটার দূরে নরসিংদীর শিবপুরে টকটকে লালমাটির দেশ সোনাইমুড়ী টেক। নরসিংদী থেকে শিবপুরের সোনাইমুড়ী যাওয়ার পথে চোখে পরবে

উয়ারী বটেশ্বর, নরসিংদী: প্রায় আড়াই হাজার বছরের পুরনো দুর্গনগরী

উয়ারী বটেশ্বর, নরসিংদী: প্রায় আড়াই হাজার বছরের পুরনো দুর্গনগরী

আমাদের দেশের প্রত্মতাত্তিক স্থানগুলো আমাদের অতীত ইতিহাস ও জাতিগত সত্তাকে তুলে ধরে। আর এসকল প্রত্মতাত্তিক স্থানগুলো পর্যটকদের জন্যও আকর্ষণীয় দর্শনীয় স্থান। নরসিংদী জেলাতে যতগুলো প্রাচীন ঐতিহ্য ও প্রত্নস্থান রয়েছে উয়ারী-বটেশ্বর তার মধ্যে অন্যতম। নরসিংদী ভ্রমণে গেলে আপনার ভ্রমণ তালিকায় অবশ্যই

পারুলিয়া মসজিদ, নরসিংদী

পারুলিয়া মসজিদ, নরসিংদী

আমাদের দেশের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা আমাদের অতীত ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে ধারণ করে এখনো স্ব-মহিমায় নিজের অস্তিত্ব জানান দেয়। প্রতিটি জেলার এসব ঐতিহাসিক স্থাপনা যেমন আমাদের দেশের সৌন্দর্যের অন্যতম অনুষঙ্গ তেমনি পর্যটকদেরও আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। উত্তরবঙ্গের ঐতিহ্যবাহী জেলা দিনাজপুরেও এমন অনেক দর্শনীয়

নরসিংদীর লটকন বাগান: সবখানে শুধু লটকন আর লটকন!

নরসিংদীর লটকন বাগান: সবখানে শুধু লটকন আর লটকন!

লটকন অনেকেরই খুব পছন্দের ফল। দেশের সবচেয়ে দারুণ স্বাদের লটকন জন্মায় নরসিংদীর শিবপুরে। থোকা থোকা লটকন ধরে আছে গাছে। গাছের আগা থেকে শুরু করে প্রতি ইঞ্চিতে পেকে লাল হয়ে যাওয়া লটকনের ছড়াছড়ি। এমন চমৎকার দৃশ্য দেখতে চাইলে চলে যেতে পারেন

নরসিংদীর বালাপুর জমিদার বাড়ি

নরসিংদীর বালাপুর জমিদার বাড়ি

প্রতিদিনের নাগরিক ব্যস্ততায় হাঁপিয়ে উঠে আমাদের প্রাণ। একমাত্রই ভ্রমণই পারে সে অবসাদকে নিমিষেই উড়িয়ে দিতে। যারা ব্যস্ততার কারণে দূরে কোথাও ঘুরতে যেতে পারেন না তারা ছুটির দিনে একদিনের জন্য ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার খুব কাছেই নরসিংদীর বালাপুর জমিদার বাড়ি। পরিবার

চিনাদী বিল: শীত ভ্রমণে নরসিংদী

চিনাদী বিল: শীত ভ্রমণে নরসিংদী

দিগন্ত-জোড়া নীল হাওড়-বাওড়, বিল এর চিরায়ত সৌন্দর্য বাঙলার প্রকৃতিতে দিয়েছে শিল্পীর তুলিতে আঁকা ছবির রূপ। গোধূলি বেলায় বিলের আকাশে উড়ে চলা পাখির দলের সৌন্দর্য প্রকৃতি প্রেমীদের নিমিষেই করে তোলে আনমনা। নীড়ে ফেরা পাখিরা সন্ধ্যের রক্তিম আকাশে মিলিয়ে যায় সূর্যেরই মত।

ড্রিম হলিডে পার্ক – নরসিংদী

ড্রিম হলিডে পার্ক – নরসিংদী

নাগরিক জীবনে যখন ক্লান্ত-পরিশ্রান্ত তখন খানিকটা সজীবতা খুঁজে পেতে ভ্রমণের বিকল্প নেই। যাদের ঘোরার জন্য হাতে সময় কম, তারা হুট করে চাইলেই কক্সবাজার, বান্দরবান, রাঙামাটি চলে যেতে পারেন না। যারা অল্প সময়ে কম খরচে পরিবার পরিজন নিয়ে ঢাকা থেকে স্বল্প

লক্ষণ সাহার জমিদার বাড়ি, নরসিংদী

লক্ষণ সাহার জমিদার বাড়ি, নরসিংদী

শত বছরের পুরনো লক্ষণ সাহার জমিদার বাড়ি। ক্রমবর্ধমান আধুনিকতার ছোঁয়া এড়িয়েও আপন জৌলুসে এখনো দাঁড়িয়ে আছে এই প্রাচীন রাজ বাড়ীটি। চমৎকার কারুকার্যময় বাড়িটি ঘুরে আসতে পারেন আপনিও, সাক্ষী হতে পারেন অতীত ইতিহাস ঐতিহ্য দর্শনের। রাজধানী শহর ঢাকা থেকে রওয়ানা করে

পরিবারের সাথে নরসিংদীর নাসিরনগর

পরিবারের সাথে নরসিংদীর নাসিরনগর

বন্ধুদের নিয়ে দলবেঁধে ভ্রমণের পাশাপাশি পরিবার নিয়েও ভ্রমণে যেতে ভালোবাসি। তেমনি এক সকালে স্ত্রী, কন্যাকে নিয়ে ছুট দিলাম সোনাইমুড়ী পাহাড়ের উদ্দেশ্যে। এলাকাটি নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার অন্তর্গত। লালমাটি ঘেরা বৃহদাকার বিভিন্ন বৃক্ষে সমৃদ্ধ সোনাইমুড়ী। ফাগুনের আগুনঝরা গরমেও হিম হিম ঠাণ্ডা।