;

মানিকগঞ্জ

বালিয়াটি প্রাসাদসহ জমিদারীর নিদর্শনে ভরপুর জনপদ

মানিকগঞ্জের ইতিহাস

মানিকগঞ্জ মহকুমা প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৪৫ সালের মে মাসে। মানিকগঞ্জ মহকুমা প্রথমে ফরিদপুর জেলার (১৮১১ সালে সৃষ্ট) অধীন ছিল। প্রশাসনিক জটিলতা নিরসন কল্পে ১৮৫৬ সালে মানিকগঞ্জ মহকুমাকে ফরিদপুর জেলা থেকে ঢাকা জেলায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়। ০১ মার্চ ১৯৮৪ সালে মানিকগঞ্জ কে জেলায় উন্নীত করা হয়। মানিকগঞ্জ ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত একটি জেলা। এই জেলার উত্তর সীমান্তে টাঙ্গাইল জেলা, পশ্চিম, পশ্চিম দক্ষিণ, এবং…

বিস্তারিত

নাহার গার্ডেন পিকনিক স্পট, মানিকগঞ্জ

নাহার গার্ডেন পিকনিক স্পট, মানিকগঞ্জ

এই শীতে অনেকেই ভাবছেন পিকনিকের কথা, আবার কেউবা ভাবছেন শীতের ছুটিতে প্রশান্তিময় এক অবকাশ যাপন। পিকনিক হউক বা শুধুই ছুটি কাটানো, ঢাকার আশেপাশে যারা ভ্রমণ গন্তব্য খুঁজছেন তাদের জন্য দারুণ এক জায়গা নাহার গার্ডেন পিকনিক স্পট। ছুটির দিনে পরিবার বা

একদিনে ঘুরে আসুন মানিকগঞ্জের তিন জমিদারবাড়ী

একদিনে ঘুরে আসুন মানিকগঞ্জের তিন জমিদারবাড়ী

ব্যস্ত নগরজীবনে কাজকর্মের চাপে যখন পিষ্ট হতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত। প্রতিদিনের একঘেয়েমি কাজ থেকে মুক্তির জন্য ছুটির দিনটি কাজে লাগিয়ে ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার আশেপাশেরই কোন দর্শনীয় স্থান। যেখান থেকে অফুরন্ত প্রাণশক্তির পাশাপাশি ইতিহাস-ঐতিহ্যের সান্নিধ্য ও পাওয়া যাবে খুব কাছ থেকে।

নজরুল প্রমীলার স্মৃতিবিজড়িত তেওতা জমিদার বাড়ি

নজরুল প্রমীলার স্মৃতিবিজড়িত তেওতা জমিদার বাড়ি

‘তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয়/সেকি মোর অপরাধ’ নজরুলের বিখ্যাত এই গানটির সাথে স্মৃতিবিজড়িত নাম তেওতা জমিদার বাড়ি। বিদ্রোহী কবি নজরুল ও তার প্রিয়তমা প্রমীলা দেবীর প্রেমের আখ্যানের সাথে জড়িত আছে এই রাজবাড়িটি। জমিদার বাড়ির পাশেই ছিল নজরুলের প্রিয়তমা স্ত্রী

৩৫০ টাকায় একদিনে ঘুরে আসুন বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

৩৫০ টাকায় একদিনে ঘুরে আসুন বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি। নতুন করে বলার কিছু নেই। একদিনে ঢাকা থেকে ঘুরতে হলে দারুণ একটি জায়গা। ভেবে দেখুন, ঢাকা থেকে ডে ট্রিপ; তাও আবার ৩৫০ টাকায়। অবিশ্বাস্য হলেও এটি সত্য। এই জমিদার বাড়ি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে এই লিংকে ক্লিক

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার বালিয়াটি প্রাসাদ

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার বালিয়াটি প্রাসাদ

অনেকেরই ইচ্ছে করে ছুটির দিনে ঢাকা শহরের কোলাহল থেকে পরিবার নিয়ে কিছু ভালো সময় কাটাতে। তবে সময়, খরচ ও নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অনেকেই যেতে চান না। তাদের কে বলছি, হাতে অল্প সময় নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন মানিকগঞ্জের বালিয়াটি প্রাসাদ

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি, মানিকগঞ্জ

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি, মানিকগঞ্জ

গোবিন্দ রাম সাহা বালিয়াটি জমিদার পরিবারের গোড়াপত্তন করেন। ১৮ শতকের মাঝামাঝি সময়ে তিনি লবণের বণিক ছিলেন। জমিদার পরিবারের বিভিন্ন উত্তরাধিকারের মধ্যে “কিশোরিলাল রায় চৌধুরী, রায়বাহাদুর হরেন্দ্র কুমার রায় চৌধুরী তৎকালীন শিক্ষাখাতে উন্নয়নের জন্য বিখ্যাত ছিলেন। ঢাকার জগন্নাথ কলেজ (বর্তমানে জগন্নাথ

তেওতা জমিদার বাড়ী, মানিকগঞ্জ

তেওতা জমিদার বাড়ী, মানিকগঞ্জ

দেশের পুরাকীর্তি স্থাপনার মধ্যে মানিকগঞ্জের তেওতা জমিদার বাড়ী ইতিহাস অন্যতম। এর বাড়ির ঐতিহাসিক নির্দর্শন এখন শুধু কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। শিবালয় উপজেলার যমুনা নদীর কূলঘেঁষা সবুজ-শ্যামল গাছপালায় ঢাকা তেওতা গ্রামটিকে ইতিহাসের পাতায় স্থান করে দিয়েছে জমিদার শ্যামশংকর রায়ের প্রতিষ্ঠিত

মানিকগঞ্জের সেরা মিষ্টি

মানিকগঞ্জের সেরা মিষ্টি

মানিকগঞ্জের অন্যতম সেরা মিষ্টি নিজাম সুইটস্। নিজাম সুইটসের মিষ্টি খেয়ে আমাদের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রশংসা করেছেন। নিজাম সুইটসের বর্তমানে দুইটি শাখা। প্রধান শাখা ঘিওর উপজেলার তেরশ্রীতে অন্যটি ঘিওর নদীর ওপার চার রাস্তার মোড়ে। বর্তমানে ৪ প্রকারের মিষ্টি