;

গাড়ির সিট বেল্ট নিয়ে কিছু কথা

গাড়ির চালক এবং এর যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য সিটবেল্ট এর উপকারিতার কথা নতুন করে বলার কিছু নেই। বিশেষ করে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে সিট বেল্টের অবদান এতোটাই অনস্বীকার্য যে বিশ্বের অধিকাংশ দেশেই রীতিমতো আইন করে চালক ও যাত্রীদের সিটবেল্ট পড়ার নিয়ম চালু রয়েছে।বাংলাদেশ সহ দুনিয়ার প্রায় দেশেই গাড়ী দুর্ঘটনার সময় গাড়ির যাত্রী ও চালক ব্যথা পান গাড়ির স্টিয়ারিং হুইল, ড্যাশ বোর্ড বা সামনের উইন্ডস্ক্রিনে ধাক্কা খেয়ে। আবার রোল ওভার বা উল্টিয়ে গেলে এক জন যাত্রী আরেক জনের উপর গিয়ে পড়েন অথবা গাড়ীর ফ্লোরেই বেখাপ্পা ভাবে পড়ে হাত পা ভাঙ্গেন । আপনি গাড়ীতে চড়ার সময় যাত্রী বা চালক যাই হোন না কেনো গাড়ির সিট বেল্ট বাধা থাকলে এই ধরনের ইনজুরি খুব সহজেই কমিয়ে আনতে পারেন। বাংলাদেশে অনেকে জানলেও সিট বেল্ট ব্যাবহার করেন না নানারকম কারণ দেখিয়ে । আজ থাকছে গাড়ির সিটবেল্ট ব্যবহার নিয়ে কিছু কথা।

১। গাড়ী চালাবার সময় মোড় ঘুরাতে কিংবা ওভারটেকের সময় গাড়ির গতি বেশি হলে যাত্রী এবং চালক উভয়ের ভারসাম্য রক্ষার জন্য সিটবেল্ট বাধাটা জরুরী।

২। গাড়ী দ্রুত গতিতে চালাবার সময় কখন হার্ড ব্রেক করলে সিটবেল্ট স্বয়ংক্রিয় ভাবে আটকে যেয়ে আপনাকে সামনে গিয়ে ধাক্কা খাওয়া থেকে রক্ষা করবে।

৩। গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়ে রোলওভারের সময় আপনাকে সিট এর সাথে বেধে রাখবে সিটবেল্ট এতে করে গাড়ী যে কয় রাউন্ড ঘুরবে আপনিও সেই কয় পাক ঘুরবেন তারপরে উল্টে থাকলেও আপনি কসরত করে বের হয়ে আসতে পারবেন। আর বেল্ট বাধা না থাকলে পাশের যাত্রীর পা হয়ত আপনার হাত এর উপর এসে বসে থাকবে অথবা আপনি নিজে হয়ত আপনার সহযাত্রীর নিচে পড়ে যেতে পারেন

৪। গাড়ির চালককে অনেক সময় গাড়ি চালনা মনযোগী করে রাখতে সহায়তা করে থাকে সিটবেল্ট। দুর্ঘটনায় সাহায্য এগিয়ে দ্রুত সহায়তার জন্যও এটি বেশ উপকারী।

কন্ট্রিবিউট – মীর মাইনুল ইসলাম

Facebook Comments
গাড়ির সিট বেল্ট নিয়ে যে কথাগুলো না জানলেই নয়…